Tuesday , 4 August 2020

ঈদে ৫ টাকায় নতুন পোশাক, শিশুদের খুশির সীমা নেই

নড়াইল মুচিরপোল এলাকার আরমান বয়স ১২ বৎসর। বাবা ভ্যান চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে তাই ঈদে নতুন জামা কেনার কোনো সুযোগই নেই। আজ একটি নতুন পাঞ্জাবি পেয়ে মনের আনন্দে নাচছে আরমান। আরমানের মতো গোয়াটখোলা বস্তিতে থাকা জেসমিন ৫ টাকায় পেয়েছে একটি সোনালি রঙের জামা। সেটি মাকে দেখাতে দেখাতে সে বাড়ির পথে হাঁটছে। এভাবে জুঁই, মিলন, ইমরান, পুতুলের মতো শিশুরা ৫ টাকা দিয়ে ঈদের নতুন পোশাক পেয়েছে। নড়াইলের মোস্তারী কমপ্লেক্সে এভাবে কয়েক শ শিশু ৫ টাকা দিয়ে নিয়ে গেছে ঈদের নতুন জামা।

শিশুরা আসছে, ৫ টাকা টোকেন মানি দিয়ে দৌড়ে দোকানে যাচ্ছে, তারপর নিজের পছন্দের ঈদের জামাটি নিয়ে নিচ্ছে। অসহায় শিশুদের জন্য এই সুযোগ তৈরি করেছে নড়াইলের সতেজ ও তার বন্ধুদের ‘স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশন’। পরিবারের সামর্থ্য না থাকলে ও ঈদে শিশুরা অন্যদের মতোই নতুন পোশাক পরবে, শিশুদের এই আনন্দে মুখরিত ছিল পুরো বাজার এলাকা।

৫ টাকায় একটি রঙিন পাঞ্জাবি পেয়ে খুশিতে চোখ ছলছল হয়ে ওঠা আরমান জানায়, এই পাঞ্জাবী পরে ঈদের নামাজ পড়ব। তারপর বন্ধুদের সাথে ঘুরে বেড়াব সারাদিন। নতুন সোনালি জামাটা নিজের গায়ে ধরে রেখে খুশিতে আত্মহারা জেসমিন বলে, এই সুন্দর ফ্রকটি আমি ৫ টাকা দিয়ে কিনেছি। এটা পরে ঈদের দিন খালার বাড়ি বেড়াতে যাব আর সারাদিন ঘুরব।

ভ্যানচালক সবুর মোল্যা বলেন, আমি ছেলেকে ঈদে নতুন কিছু কিনে দিতে পারিনি, তা আমাদের এই বাজানরা পূরণ করে দিছে, আল্লাহ যেন এদের সারাজীবন এভাবে সাহায্য করার তৌফিক দেয়।

শিশুদের জন্য ৫ টাকায় ঈদের নতুন পোশাকের আয়োজন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের সংগঠন ‘স্বপ্নের খোঁজে’। শুধু তাই নয় এতিম শিশুদের খাবারও শিক্ষা উপকরণ, লকডাউনে বাজার না থাকায় সবজিবাজার, বাড়িতে খাবার পৌঁছে দেওয়া, মাস্ক ও সাবানসহ করোনায় এলাকার ৩ হাজার মানুষকে সহায়তা করছে গত ৪ মাস ধরে। নিজেদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় পরিবারের দেওয়া হাতখরচ, আর আত্মীয়-স্বজনের কাছ থেকে টাকা নিয়ে তারা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে, নিজেদের জোগাড় করা অর্থ দিয়ে।

Comments

Check Also

সপ্তাহের শেষে বাড়তে পারে বৃষ্টিপাত

সপ্তাহের শেষ দিকে সারাদেশে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। আজ সোমবার …