Thursday , 26 November 2020

চুয়াডাঙ্গায় সন্তানের অত্যাচারে বাড়ি ছাড়া ২ মা

চুয়াডাঙ্গা শহরের দুই এলাকার দুই মা কস্টে আছেন। দুই মায়েরই কস্টের কারণ নিজের সন্তান। দুই মা এখন বাড়ি ছেড়ে আছেন অন্যত্র। পৃথক এই দুটি ঘটনা নিয়ে আদালতে পৃথক মামলাও হয়েছে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা শহরের দক্ষিণ হাসপাতাল পাড়ার মৃত হারুন অর রশিদের স্ত্রী সুলতানা রাজিয়া তার পুত্র সুলতান আহমেদের বিরুদ্ধে চুয়াডাঙ্গা আমলী আদালতে গত ১১ অক্টোবর মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় বলা হয়েছে, গত ১০ অক্টোবর মামলার বাদীনির পুত্র সুলতান আহমেদ তার মাকে মারধোর করেন এবং ঘরে থাকা প্রায় তিন লাখ টাকার বিভিন্ন সামগ্রী অন্যত্র বিক্রি করে দেন। চুয়াডাঙ্গা আমলী আদালতে দায়ের করা এ মামলায় আসামি সুলতান আহমেদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার আদেশ দেন আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাজেদুর রহমান। ওই মামলায় গত ১৮ অক্টোবর পুলিশ সুলতান আহমেদকে গ্রেপ্তার করে। পরদিন আদালত থেকে সুলতান আহমেদ জামিনে মুক্ত হন। জামিনে মুক্ত হওয়ার তিনদিন পর সুলতান আহমেদ বাড়ির ভেতরে থাকা অনুমান এক লাখ টাকার বিভিন্ন ধরণের ফলজ গাছ কেটে বিক্রি করে দেন। এ বিষয়েও আজ শুক্রবার থানায় পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলা প্রসঙ্গে সুলতান আহমেদ বলেন, আমি মায়ের ওপর অত্যাচার করি ঠিক না। মা বাড়ির জমি অন্য সন্তানদের নামে লিখে দিয়েছেন। আমি থাকবো কোথায়? এজন্য আমি ওই বাড়িতে উঠেছি।

এ ব্যাপারে সুলতান আহমেদের বোন লাইলা বানু বলেন, আমার মায়ের তিন পুত্র সন্তান। এর মধ্যে মা সুলতান আহমেদকে জমি দেননি বলে তাকে ১০ লাখ টাকা দিয়েছেন। জমি দিয়েছেন অন্য দুই সন্তানকে। মা কারো প্রতি অন্যায় করেননি। বরং আমার ভাই মায়ের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা নেওয়ার পরও জমি দাবি করছেন। তার নিজের নামে আলাদা বাড়িও রয়েছে।

অপর এক মামলার বিবরণে জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা শহরের সাদেক আলী মল্লিকপাড়ার হাশেম আলীর স্ত্রী আহিনূর বেগম গত ২১ অক্টোবর তার ছেলে শাহিন শেখ ও পুত্রবধূ ময়না খাতুনের নামে চুয়াডাঙ্গা আমলী আদালতে মামলা দায়ের করেন।

ওই মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, ছেলে শাহিন শেখ মাদকাসক্ত। শাহিন শেখ তার মা আহিনুর বেগমকে মারধোর করে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে। ঘরে থাকা মায়ের ৫০ হাজার টাকার সাংসারিক জিনিসপত্র বিক্রি করে দিয়েছে। এ মামলাতেও শাহিন শেখের বিরুদ্ধে আদালত থেকে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

Comments

Check Also

মাদরাসা থেকে নিখোঁজ ছাত্র

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে কওমী মাদরাসা থেকে এহসানুল হক হৃদয় (১০) এক ছাত্র নিখোঁজ হয়েছে। হৃদয় ২৩ …