বুধবার , ১৭ অক্টোবর ২০১৮

জজ মিয়া ফাঁসি চান তারেক রহমানসহ তিন পুলিশ কর্মকর্তার

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলার রায়ে খুশি সেই আলোচিত জজ মিয়া। তবে হামলার মূল পরিকল্পনাকারী বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানের মৃত্যুদণ্ড না হওয়ায় পুরোপুরি সন্তুষ্ট না। এছাড়া বিচার ভিন্নখাতে নিতে জজ মিয়া নাটক সৃষ্টিতে সরাসরি জড়িত সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার রুহুল আমিন, সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার মুন্সি আতিক, সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুর রশীদের ফাঁসি হওয়া উচিত ছিল। গতকাল বুধবার গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ের পর ইত্তেফাককে দেওয়া তাত্ক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় জজ মিয়া এসব কথা বলেন।
জজ মিয়া বলেন, দেশে যদি চার দলীয় জোট সরকার এখন ক্ষমতায় থাকত তাহলে আজ আমার ফাঁসি হতো। তারেক রহমানের সরাসরি নির্দেশে ওই হামলার ঘটনা ঘটে। কিন্তু এ রায়ে তার ফাঁসি না হয়ে যাবজ্জীবন সাজা হয়েছে। আমি তার ফাঁসি চাই। আমার প্রত্যাশা ছিল তার ফাঁসি হবে। এখন রাষ্ট্রপক্ষ হয়ত হাইকোর্টে আপিল করবে। উচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টের রায়ে যেন তারেক রহমানের ফাঁসি হয়, এটাই আমার চাওয়া। যারা আমার মতো নিরীহ মানুষের কাছ থেকে ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে স্বীকারোক্তি আদায় করেছিল, সেই তিন পুলিশ কর্মকর্তাও জঘন্য অপরাধ করেছিল। তাদেরও ফাঁসি হবে এটা আমি আশা করেছিলাম। জজ মিয়া বলেন, ১৪ বছর পর রায় হয়েছে। আমি চাই রায় দ্রুত কার্যকর করা হোক।

Comments

Check Also

যেভাবে আলামত নষ্ট করা হয় হামলাকারীদের রক্ষায়

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার আবদুল কাহার আকন্দ ২০১১ …