বুধবার , ১৭ অক্টোবর ২০১৮

টক দইয়ের শারীরিক কার্যকরী

টক দই নানা ধরনের শারীরিক সমস্যা সমাধানে খুবই কার্যকরী। প্রতিদিন নিয়ম করে মাত্র ১ কাপ টক দই খেলে শরীরের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দূরে রাখা যায়। টক দইয়ে যেসব স্বাস্থ্যগুণ রয়েছে সেগুলো হচ্ছে-

১. টক দইয়ে থাকা ল্যাকটিক কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর করে। এ ছাড়া নিয়মিত টক দই খেলে কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে।

২. অতিরিক্ত তেলে ভাজাপোড়া ও মসলাযুক্ত খাবার খাওয়ার ফলে অনেকেই বদহজমের সমস্যায় ভোগেন। এই সমস্যা দূর করতে দারুন কার্যকরী টক দই। এতে থাকা ফারমেন্টেড এনজাইম খাবার হজমে সহায়তা করে এবং বদহজম প্রতিরোধ করে।

৩. টক দইয়ে ফ্যাটের পরিমাণ অনেক কম থাকে। এছাড়া এটি রক্তের কোলেস্টেরল কমাতে দারুন কার্যকরী। এ কারণে এটি স্ট্রোক,হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।

৪. কিডনি সঠিকভাবে কাজ না করলে রক্তে অনেক সময় অনেক টক্সিন জমে থাকে। আর নিয়মিত টক দই খাওয়ার অভ্যাস রক্ত পরিশোধনের কাজ করে। এটি রক্তকে টক্সিন মুক্ত রাখতে সহায়তা করে।

৫. উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা দূর করতেও টক দইয়ের জুড়ি নেই।নিয়মিত টক দই খাওয়ার অভ্যাস কোলেস্টরল কমায় এবং সেই সঙ্গে কমায় উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি।

৬. অনেকেই দুধ খেতে পারেন না, হজমে সমস্যা হয়। তারা দুধের পরিবর্তে নিয়মিত টক দই খেতে পারেন।এটি হজমের সহায়ক হবে।

৭. ওজন কমাতে দারুনভাবে সাহায্য করে টক দই। ফ্যাট কম থাকায় এটি ওজন কমাতে ভূমিকা রাখে। সেই সঙ্গে ক্ষুধাও কম অনুভূত হয়।

 

Comments

Check Also

ধনেপাতার রস ওজন কমায়

রান্নার স্বাদ বাড়াতে ধনেপাতার জুড়ি নেই। সুগন্ধি এই পাতার অনেক ওষুধি গুণও রয়েছে। এতে থাকা …