Wednesday , 8 April 2020

ট্রেনে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হচ্ছে দুর্ঘটনা এড়াতে

দুর্ঘটনা এড়াতে ট্রেনে ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা স্থাপনের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে রেলপথ মন্ত্রণালয় একটি প্রকল্প গ্রহণ করেছে। রোলিং স্টক অপারেশন উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৪০টি ব্রডগেজ ডিজেল ইলেকট্রিক লোকোমোটিভের (ইঞ্জিন) ক্যাবে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

আজ রবিবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। কমিটির সভাপতি এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য মন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন, মো. শফিকুল আজম খাঁন, মো. সাইফুজ্জামান, গাজী মোহাম্মদ শাহ নওয়াজ ও নাদিরা ইয়াসমিন জলি এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে বিগত ছয় মাসে ১৭৫ দশমিক ২০ একর রেলভূমি জবরদখলমুক্ত করে রেলওয়ের নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে বলে জানানো হয়। বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শেষে অবৈধভাবে রেলওয়ের জায়গায় বাসস্থান ও অন্যান্য স্থাপনা তৈরি করে যারা রেলওয়েকে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করছে, তাদের বিরুদ্ধে উচ্ছেদ কার্যক্রম জোরদার করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তায় নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে জমি উদ্ধার কার্যক্রম চলমান রাখতে বলা হয়েছে।

কমিটি সূত্র জানায়, বৈঠকে বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের ছয়টি ও পূর্বাঞ্চলের চারটি জরাজীর্ণ হাসপাতালের উন্নয়ন কার্যক্রম জোরদার করতে বলা হয়েছে। এরআগে বৈঠকে রেলওয়ে হাসপাতালের জীর্ণ দশা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়। কোনো কোনো হাসপাতালে ওষুধ আছে তো ডাক্তার নেই, আবার ডাক্তার আছে তো ওষুধ নেই অবস্থা বলে উলে­খ করা হয়। রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাই সেখানকার সেবা বঞ্চিত দাবি করে বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে দ্রুত হাসপাতালগুলোকে পুনরুজ্জীবিত করার তাগিদ দেওয়া হয়েছে।

Comments

Check Also

সাধারণ ছুটি ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে চলমান ছুটি আরও তিনদিন বাড়ানো হয়েছে। আগামী ১২ ও ১৩ এপ্রিলও …