সোমবার , ২৩ জুলাই ২০১৮

নোয়াখালীতে সন্ত্রাসী হামলায় গুলিবিদ্ধসহ ৭ জন আহত হয়

নোয়াখালীর সদর উপজেলার চরমটুয়া ইউনিয়নে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে দুইজন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত সাতজন আহত হয়েছে।

রবিবার রাত ১০টার দিকে চরকাউনি গ্রামের নোয়ারহাট এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধ হয়ে আহতরা হলেন ওই গ্রামের আবু জাহেরর ছেলে আকরাম হোসেন (২৩) ও দুলাল মিয়ার ছেলে বোরহান উদ্দিন (২৪)। তাদেরকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলাকারীদের ধরতে রাতেই পুলিশ অভিযান চালালেও কাউকে আটক করতে পারেনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কয়েক মাস আগে আন্ডারচর ইউনিয়নের চর কাউনি গ্রামের মোকাররম ভূঁইয়ার ছেলে ফয়সালকে অস্ত্রসহ আটক করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এক মাস আগে তিনি ছাড়া পেয়ে এলাকায় আসেন। তার আটকের বিষয়ে স্থানীয় ইট ব্যবসায়ী সোলায়মানের সহায়তা ছিল ধারণা করে গত শুক্রবার সোলায়মানসহ তার কয়েকজন লোককে পিটিয়ে জখম করেন ফয়সাল ও তার লোকজন। ওই রাতে হামলার ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ করেন সোলায়মান। রবিবার সকালে ওই অভিযোগের তদন্তে যায় পুলিশ।

পুলিশ আসার খবর পেয়ে পুনরায় সোলায়মানের ওপর ক্ষিপ্ত হন ফয়সাল। এর জের ধরে রবিবার রাত ১০টার দিকে ফয়সাল তার লোকজন নিয়ে নোয়ারহাট এলাকায় সোলায়মান ও তার লোকজনের ওপর হামলা করেন এবং এলোপাতাড়ি গুলি ছোড়েন। এতে দুইজন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত সাতজন আহত হন।

স্থানীয়রা গুলিবিদ্ধ আকরাম ও বোরহানকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।

সুধারাম মডেল থানার ওসি আনোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। আহতদের লিখিত অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। তিনি জানান, স্থানীয় মোকাররম ভূঁইয়ার ছেলে ফয়সাল এই হামলা চালিয়েছে বলে জানা গেছে। তাকে ধরার জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Comments

Check Also

কুষ্টিয়ায় ১৬ বছর বয়সেই ৫ বিয়ে করে এক কিশোর !

ছেলেদের ২১ ও মেয়েদের ১৮ বছর বিয়ের জন্য ন্যুনতম বয়স। কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় রানা (১৬) …