Saturday , 24 October 2020

বাবার দ্বিতীয় বিয়ে মানতে না পেরে সৎ মাকে খুন

স্ত্রীর মৃত্যুর বছর না ঘুরতেই শ্যালিকা সেলিনা খানমকে বিয়ে করেন রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরের হুজুরপাড়ার বাসিন্দা এস এম ওবায়দুল্লাহ। তবে তার দ্বিতীয় বিয়ে মানতে পারেননি জার্মান প্রবাসী ছেলে বিপ্লব হোসেন। তিনি সৌদিআরব প্রবাসী চাচা মিজানুর রহমানের সঙ্গে পরামর্শ করে সৎ মাকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। সেই অনুযায়ী এক ভাড়াটে খুনির সঙ্গে দুই লাখ টাকার চুক্তি হয়। তাকে অগ্রিম ৫০ হাজার টাকা ও ছুরি পৌঁছে দেন স্থানীয় আরেকজন। পরে সেলিনার বাসায় ভাড়াটে সেজে উঠে তাকে হত্যা করে পালিয়ে যায় ১৮ বছর বয়সী জান্নাতুল ফেরদৌস নাইম। গত ২ অক্টোবর হুজুরপাড়ায় সেলিনা হত্যা মামলার তদন্তে জানা গেছে এসব তথ্য।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) লালবাগ বিভাগের উপ-কমিশনার রাজীব আল মাসুদ সমকালকে বলেন, তদন্তের একপর্যায়ে হত্যায় জড়িত জান্নাতুল ফেরদৌস নাইমকে শনাক্ত করা সম্ভব হয়। শুক্রবার নড়াইলের নড়াগাতি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে ডিবি। শনিবার তাকে আদালতে হাজির করা হলে সে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়।

সেলিনা খানম হত্যার ঘটনায় তার স্বামী বাদী হয়ে কামরাঙ্গীরচর থানায় মামলা করেন। থানা পুলিশের পাশাপাশি ডিবিও এ মামলার ছায়াতদন্ত শুরু করে। একপর্যায়ে হত্যারহস্যের জট খুলতে শুরু করে। নাইমকে গ্রেপ্তারের পর রাজধানীর ভাষানটেক এলাকায় তার বাসা থেকে উদ্ধার করা হয় হত্যায় ব্যবহৃত ছুরি।

ডিবির লালবাগ জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার শামসুল আরেফীন জানান, গত বছরের ডিসেম্বরে এস এম ওবায়দুল্লাহর প্রথম স্ত্রী মৃত্যুবরণ করেন। সম্প্রতি তিনি দ্বিতীয় বিয়ে করেন। এতে প্রবাসী ছেলে বিপ্লব অত্যন্ত ক্ষিপ্ত হন। এ নিয়ে পারিবারিক কলহের সৃষ্টি হয়। পরে বিপ্লব তার গ্রামের বাড়ি নড়াইলের একজনের মাধ্যমে সৎ মাকে হত্যার জন্য নাইমের সঙ্গে চুক্তি করেন। পরিকল্পনা অনুযায়ী সেলিনার বাসায় ভাড়াটে হিসেবে ওঠে মাদ্রাসায় পড়ালেখা করা নাইম। সুযোগ বুঝে ২ অক্টোবর সে ছুরিকাঘাতে সেলিনাকে হত্যা করে। এর পরদিন বিপ্লব মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে নাইমকে ৬০ হাজার টাকা পাঠান। হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনায় বিপ্লবের সঙ্গে ছিলেন তার চাচা মিজান।

ডিবি কর্মকর্তারা জানান, হত্যার পরিকল্পনাকারী দু’জন দেশের বাইরে থাকায় তাদের গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। তবে চার্জশিটে তাদেরও অভিযুক্ত করা হবে। দেশে ফিরলেই তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

Comments

Check Also

নারীদের মধ্যরাতে ‘শেকল ভাঙার পদযাত্রা’

ধর্ষণ ও নারীর প্রতি সহিংসতার বিরুদ্ধে ১২ দফা দাবি নিয়ে মধ্যরাতে ঢাকার রাজপথে মশাল হাতে …