Saturday , 25 May 2019

মমতা বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানালেন

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিনে শ্রদ্ধা জানালেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার রাতে টুইট করে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা প্রকাশ করেন এই বাঙালি নেতা। টাইমস অব ইন্ডিয়া।

টুইটে মমতা লেখেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকীতে জানাই অন্তরের শ্রদ্ধা।’ মমতার সংক্ষিপ্ত টুইটে রিটুইট করেন প্রায় দুইশ’ মানুষ। গৌতম দাস নামে ব্যক্তি লিখেছেন, ‘তিনি বাংলার এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্ত ছুটে বেড়িয়ে বাঙালির কাছে পৌঁছে দেন পরাধীনতার শিকল ভাঙার মন্ত্র। সে মন্ত্রে বলীয়ান হয়ে স্বাধীন দেশে পরিণত হওয়ার পাশাপাশি আজ বাংলাদেশ পরিণত হয়েছে বিশ্বের এক সম্ভাবনাময় দেশে।’

জ্যোতি চৌধুরী লিখেছেন, ‘শেখ মুজিবুর রহমান একজন বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ। তিনি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা পিতা। ওনার জন্মবার্ষিকীতে জানাই অন্তরের শ্রদ্ধা ও প্রণাম।’

এদিকে, রবিবার সকালে বাংলাদেশের জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের সামনে জাতির জনকের ৯৯তম জন্মবার্ষিকীতে তাঁর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর কিছু সময় নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আরও পড়ুনঃ জীবনসঙ্গী হিসেবে যেমন ছেলে চান জয়া আহসান

প্রধানমন্ত্রী চলে গেলে সকলের জন্য জায়গাটি উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। এরপর অওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানায়। এ সময় স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে পুরো এলাকা।

১৯২০ সালের ১৭ মার্চ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় শেখ লুৎফুর রহমান এবং সায়রা বেগমের ঘরে জন্ম নেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ছয় ভাই-বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন তৃতীয়। গোপালগঞ্জ পাবলিক স্কুল ও কলকাতা ইসলামিয়া কলেজে পড়াশোনার শেষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন তিনি। বঙ্গবন্ধু ছিলেন বাংলাদেশের প্রথম প্রেসিডেন্ট এবং পরে ১৯৭৫-এ তাঁর হত্যাকাণ্ডের আগে পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী পদে থাকেন।

Comments

Check Also

ঢাকাসহ বিভিন্ন অঞ্চলে মৃদু থেকে মাঝারী তাপপ্রবাহ হচ্ছে ও অব্যাহত থাকতে পারে

ঢাকা, মাদারীপুর, দিনাজপুর, সৈয়দপুর, রাজশাহী, পাবনা এবং নওগাঁ অঞ্চলসহ খুলনা বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু থেকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *