Friday , 10 April 2020

‘মুকূটহীন রাজা’ সাকিবের বিদায়

রাজার মতোই বিশ্বকাপে এসেছিলেন সাকিব আল হাসান। তিন ফরম্যাটে সেরা অলরাউন্ডার হিসেবেই বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেন তিনি। বিশ্বমঞ্চেও সেরা হয়ে থাকলেন বাংলাদেশি এই ক্রিকেটার। আসর থেকে বিদায় নেওয়ার দিনে আবার সেরা রান সংগ্রাহকের মুকুটটা শোভা পেল সাকিবের মাথায়। ৯ ম্যাচে ৬০৬ রান করেছেন সাকিব। বল হাতে নিয়েছেন ১১ উইকেট। বিশ্বকাপে সত্যিকার রাজা তো সাকিবই!

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ থেকেই সপ্রতিভ সাকিব আল হাসান। খেলছেন যেন স্বপ্নের মতো। সক্ষমতার সবটুকু দিয়েই আসরটা শুরু করেন তিনি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ব্যাট হাতে ৭৫, বল হাতে নেন এক উইকেট। লড়াইয়েই ম্যাচেই ম্যাচ সেরার পুরস্কার তার ঝুলিতে। 

পরের চার ম্যাচে দুটি শতক ও এক অর্ধশতক। যার মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জয় পায় বাংলাদেশ। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করেই শীর্ষ রান সংগ্রাহকদের তালিকায় শীর্ষে উঠে যান সাকিব। ছিলেন বেশ কিছুদিন। এর মধ্যে দুর্দান্ত ব্যাটিং করায় অ্যারন ফিঞ্চ, ডেভিড ওয়ার্নার ও রোহিত শর্মার কাছে শীর্ষস্থান হারিয়ে বসেন সাকিব। 

অষ্টম ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ছাড়িয়ে গেলেন নিজেকেই। ব্যাট হাতে ৫১ আর বল হাতে ২৯ রানে পাঁচ উইকেট। রান মুকুটের আরো কাছে চলে আসেন তিনি। ভারতের বিপক্ষে ৬৬ রান করেও রোহিত শর্মার চেয়ে মাত্র ২ রানে পিছিয়ে ছিলেন। পাকিস্তানের বিপক্ষে আর কিউকে সুযোগ দিলেন না। ছাড়িয়ে গেলেন সবাইকে। কেবল সেটাই নয় রানটাকেও নিয়ে গেলেন অন্যদের ধরাছোঁয়ার প্রায় বাইরে। 

পাকিস্তানের বিপক্ষে সেরা রান সংগ্রাহকের মুকুট উঠলো সাকিব আল হাসানের মাথায়। বাকি ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্সটা একেবারে সাদামাটা হওয়ায় এটাই এবারের আসরে বাংলাদেশের শেষ ম্যাচ। সাকিবের বিদায়ে বিশ্বকাপ এখন ‘রাজা’বিহীন রাজত্ব।

Comments

Check Also

রমজান শরীফে অফিসের সময় সকাল ৯টা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত

আসন্ন রমজান মাসের জন্য সব সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত এবং আধা-স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে অফিসের সময়সূচি সকাল ৯টা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *