রবিবার , ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮

শুষ্ক মৌসুমে আবারও মেঘনার তীর রক্ষা বাঁধে ধস

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে মেঘনা নদীর তীর রক্ষা বাঁধে আবারও ধস দেখা দিয়েছে। শুষ্ক মৌসুমেও বাঁধে ধস দেখা দেওয়ায় স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। গত সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত বাঁধের প্রায় ১০০ মিটার ধসে গেছে। এর আগে রবিবার রাত থেকে ধস দেখা দেয়। গত দেড় বছরে ওই বাঁধে অন্তত আটবার ধসের ঘটনা ঘটেছে।

জানা যায়, দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ শুরু না হওয়ায় বাঁধের দুই পাশের এলাকা অব্যাহতভাবে ভাঙছে। আশপাশের এলাকায় ভাঙনের কারণে বাঁধ ধসে পড়েছে। অনিয়মের মধ্য দিয়ে নিম্ন্নমানের কাজ করায় বারবার বাঁধে ধস নামছে বলেও স্থানীয়দের অভিযোগ। কমলনগর রক্ষায় আরো আট কিলোমিটার বাঁধ নির্মাণের দাবি তাদের।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের প্রকল্প ইনচার্জ মো. আফছার বলেন, নির্মাণাধীন বাঁধের অদূরে চর জেগে উঠেছে। যে কারণে পানির গতিপথ পরিবর্তন হয়েছে। তীব্র জোয়ারের কারণে উত্তর পাশের ৩০ মিটার বাঁধে ধস নামে। ধস ঠেকাতে জিও ব্যাগ (বালুভর্তি বিশেষ ব্যাগ) ডাম্পিং করা হয়েছে।

লক্ষ্মীপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ মূসা বলেন, ‘পানি কমতে শুরু করায় নদীর ভাঙন বেড়েছে। এর প্রভাব তীরে বাঁধেও পড়েছে। বাঁধ ধসের পরপরই সংস্কারকাজ করা হচ্ছে। কর্তৃপক্ষকে জানানোর পর কুমিল্লা অঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী বাবুল চন্দ্র শীল এসে পরিদর্শন করেছেন। এখানে ভাঙন প্রতিরোধে এক কিলোমিটার বাঁধ যথেষ্ট নয়। আরো সাড়ে ১৫ কিলোমিটার বাঁধ নির্মাণের জন্য মন্ত্রণালয়ে উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিপিপি) পাঠানো হয়েছে। আগামী মাসের মধ্যে এটি অনুমোদন হবে বলে প্রত্যাশা করছি।’

Comments

Check Also

নবম জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতা সমগ্র প্রকাশিত

নবম জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রদত্ত বক্তৃতা সমগ্র নিয়ে দুই খণ্ডে প্রকাশিত হলো ‘৯ম …