Friday , 18 September 2020

১০ বছর পর টেস্ট দল গেল পাকিস্তানে

২০০৯ সালে যে দলটির উপর সন্ত্রাসী হামলার কারণে পাকিস্তানের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিষিদ্ধ হয়েছিল সেই শ্রীলঙ্কাই আবার টেস্ট ক্রিকেট ফেরাচ্ছে পাকিস্তানে। দীর্ঘ দশ বছর পর প্রথম দল হিসেবে পাকিস্তানের মাটিতে টেস্ট ক্রিকেট খেলতে আজ পাকিস্তান পৌঁছেছে শ্রীলঙ্কা। কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যে ইসলামাবাদে অবতরণ করে শ্রীলঙ্কা দল। টুইটারে শ্রীলঙ্কা দল বহনকারী বিমানের একটি ছবি পোস্ট করে পিসিবি প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান এটাকে একটি ‘ঐতিহাসিক মুহূর্ত’ হিসেবে অভিহিত করেছেন।

চলতি সফরে পাকিস্তানের বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজ খেলবে সফরকারী শ্রীলঙ্কা দল। প্রথমটি শুরু হবে আগামী ১১ ডিসেম্বর রাওয়ালডিন্ডিতে এবং দ্বিতীয়টি ১৯ ডিসেম্বর শুরু হবে করাচিতে। ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা দল বহনকারী বাসে জঙ্গী হামলায় আট ব্যাক্তি নিহত ও বেশ কয়েকজন খেলোযাড় ও কর্মকর্তা আহত হন।

সম্প্রতি পাকিস্তান সফরে ওয়ানডে সিরিজ খেলতে এসে লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে বলেন, ‘পাকিস্তানে এটা আমার প্রথম সফর। ২০০৯ সালের ঘটনার পর খেলোয়াড়রা পাকিস্তান সফরের বিষয়ে ভীত ছিল। তবে গত দুই বছরে শ্রীলঙ্কা এবং আরো কয়েকটি দল পাকিস্তান সফর করেছে। আমরা পাকিস্তানের ভালো ক্রিকেট খেলতে চাই এবং আশা করছি তারা আমাদের পূর্ণ নিরাপত্তা দেবে।’

শ্রীলঙ্কা দলের উপর জঘন্য হামলার পর থেকেই নিরাপত্তার কারণে পাকিস্তানের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিষিদ্ধ হয়ে পড়ে। পাকিস্তান দল তাদের হোম সিরিজগুলো নিরপেক্ষ ভেন্যু হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে খেলতে বাধ্য হয়। ২০১৫ সালে জিম্বাবুয়ে দল টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে পাকিস্তানের মাটিতে পুনরায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরানোর দরজা খুলে দেয়। তবে জিম্বাবুয়ে দলের সফরের চার বছর পর এবার লঙ্কানরা পাকিস্তানের মাটিতে টেস্ট ক্রিকেট ফেরাতে যাচ্ছে।

বার্তা সংস্থা এএফপিকে ওয়াসিম বলেন, ‘দেশের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে না পারার কারণেই পাকিস্তান বারবার পরাজিত হচ্ছে। নিজ মাঠে নিজ দেশের নায়কদের খেলা দেখার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হয়েছে পাকিস্তানের ক্রিকেট ভক্তরা।’

Comments

Check Also

বাবাকে পিটিয়ে হত্যা মাকে অপমান করায়

মাকে জনসম্মুখে অপমান করায় বাবাকে পিটিয়ে হত্যা করেছেন আহমেদ নামের মিশরের এক কিশোর। মিশরের দক্ষিণ …