Wednesday , 8 April 2020

২২ জানুয়ারি ফাঁসিতে ঝুলানো হবে দিল্লির ৪ ধর্ষককে

ভারতের নয়াদিল্লিতে চলন্ত বাসে ছাত্রী ধর্ষণের মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত চার আসামির দণ্ড কার্যকর হচ্ছে আগামী ২২ জানুয়ারি।

মঙ্গলবার দিল্লির আদালত এক শুনানিতে এ তারিখ নির্ধারণ করেন বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

২০১২ সালে চিকিৎসাবিদ্যার ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ, অত্যাচার ও খুনের ঘটনায় পরের বছর দোষী সাব্যস্ত করা হয় অক্ষয় সিং ঠাকুর, মুকেশ, পবন গুপ্ত এবং বিনয় শর্মা নামের এই চার যুবককে।

বিবিসি জানায়, চলন্ত বাসে ধর্ষণের পর ছাত্রীহত্যার ঘটনাটি ব্যাপক সাড়া জাগায়। এর পরিপ্রেক্ষিতে আইনও সংশোধন করে ভারত। নির্যাতনের শিকার ওই ছাত্রীর নাম হয় ‘নির্ভয়া’।

চার সাজাপ্রাপ্ত ছাড়াও গণধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় আরও দুই অভিযুক্ত রয়েছে। পঞ্চম অভিযুক্ত রাম সিং আগেই আত্মহত্যা করে এবং একজন নাবালক যাকে সংশোধনাগারে তাকে তিন বছর রাখার পর ছেড়ে দেওয়া হয়।

গতমাসে শেষবার রায় পর্যালোচনা বা খতিয়ে দেখার আবেদন খারিজ করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট, যা আবেদন করেছিল আসামি অক্ষয় সিং।

নির্ভয়ার মা প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, এই রায় বিচারব্যবস্থার ওপর মানুষের বিশ্বাস ফেরাবে। আমার মেয়ে বিচার পাবে।

২০১২ এর ১৬ ডিসেম্বর দিল্লিতে প্যারামেডিকেলের ওই ছাত্রীকে গণধর্ষণ এবং অত্যাচার করা হয় চলন্ত বাসে। পরে তাকে সেখান থেকে ছুড়ে রাস্তায় ফেলে দেওয়া হয়। এ সময় তিনি নগ্ন এবং রক্তাক্ত ছিলেন। ২৯ ডিসেম্বর নির্ভয়ার মৃত্যুর পর দেশজুড়ে প্রতিবাদের ঢেউ আছড়ে পড়ে।

মৃত্যুদণ্ডাদেশপ্রাপ্তরা এই মুহূর্তে তিহার জেলে রয়েছে। এরই মধ্যে সেখানে ফাঁসি কার্যকরের প্রস্তুতি শুরু হয়েছে।

Comments

Check Also

পাকিস্তানে ৩ ঘণ্টার কারফিউ জুম্মার নামাজে জমায়েত ঠেকাতে

করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে পাকিস্তান পুলিশ মুসলিমদের শুক্রবারের জুম্মার নামাজে বড় জমায়েত ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে …